ABVP-র অনুষ্ঠানে এসে যাদবপুরে পড়ুয়াদের প্রবল বিক্ষোভের মুখে বাবুল সুপ্রিয়        এই প্রথম মুখোমুখি হলেন অমিত-মমতা        আগামিকাল দিল্লি যাচ্ছেন মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়, বৈঠক করতে পারেন প্রধানমন্ত্রী মোদীর সাথেও        ফের সংঘর্ষ বিরতি চুক্তি লঙ্ঘন পাকিস্তানের, ২ সেনার মৃতদেহ উদ্ধার করতে শেষমেশ সাদা পতাকা দেখাতে বাধ্য হল পাক সেনা        এবার নীরব মোদীর ভাই নেহালের বিরুদ্ধে নোটিশ জারি করল ইন্টারপোল        বাম ছাত্র-যুবদের নবান্ন অভিযান ঘিরে ধুন্ধুমার, অভিযান আটকাতে লাঠি চার্জ, কাঁদানে গ্যাস, জল কামান পুলিশের        BREAKING NEWS রাজীব কুমারের রক্ষাকবজ খারিজ করল কলকাতা হাইকোর্ট, গ্রেফতার হতে পারেন যে কোনও সময়        শিল্প সহ একাধিক দাবিতে সিঙ্গুর থেকে পদযাত্রা শুরু বাম ছাত্র-যুব সংগঠন গুলির        কাশ্মীর ভারতেরই রাজ্য, স্বাধীনতার পর এই প্রথম রাষ্ট্রসঙ্ঘে স্বীকার পাকিস্তানের        ভারতীয় সেনাবাহিনীর বড় সাফল্য, LOC-র ওপারে পাকিস্তানের জঙ্গি শিবির উড়িয়ে দিলো ভারতীয় সেনা        ABVP-র অনুষ্ঠানে এসে যাদবপুরে পড়ুয়াদের প্রবল বিক্ষোভের মুখে বাবুল সুপ্রিয়
এই প্রথম মুখোমুখি হলেন অমিত-মমতা
আগামিকাল দিল্লি যাচ্ছেন মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়, বৈঠক করতে পারেন প্রধানমন্ত্রী মোদীর সাথেও
ফের সংঘর্ষ বিরতি চুক্তি লঙ্ঘন পাকিস্তানের, ২ সেনার মৃতদেহ উদ্ধার করতে শেষমেশ সাদা পতাকা দেখাতে বাধ্য হল পাক সেনা
এবার নীরব মোদীর ভাই নেহালের বিরুদ্ধে নোটিশ জারি করল ইন্টারপোল
বাম ছাত্র-যুবদের নবান্ন অভিযান ঘিরে ধুন্ধুমার, অভিযান আটকাতে লাঠি চার্জ, কাঁদানে গ্যাস, জল কামান পুলিশের
BREAKING NEWS রাজীব কুমারের রক্ষাকবজ খারিজ করল কলকাতা হাইকোর্ট, গ্রেফতার হতে পারেন যে কোনও সময়
শিল্প সহ একাধিক দাবিতে সিঙ্গুর থেকে পদযাত্রা শুরু বাম ছাত্র-যুব সংগঠন গুলির
কাশ্মীর ভারতেরই রাজ্য, স্বাধীনতার পর এই প্রথম রাষ্ট্রসঙ্ঘে স্বীকার পাকিস্তানের
ভারতীয় সেনাবাহিনীর বড় সাফল্য, LOC-র ওপারে পাকিস্তানের জঙ্গি শিবির উড়িয়ে দিলো ভারতীয় সেনা

গাজন- দক্ষিণ ২৪ পরগনার দক্ষিণের গীতিনাট্য / লেখকঃ চন্দন মিত্র

গেঁয়োজনের সৃজনশীলতা  

আমরা কেবল হাততালি দিই । আমরা হ্যাংলা দর্শক , বোকাশ্রোতা । আমাদের যা দেখানো হয় দেখি, যা শোনানো হয় শুনি । কারণ সৃজনশীলতা নামের সোনারহরিণটি পোষার ক্ষমতা নাকি লোকসমাজের নেই ; বাবুরাই তাকে পোষণ করার ধক রাখেন। সুতরাং সংস্কৃতির শর্ত হল শহর থেকে যা চুইয়ে নামবে তা অকাতরে পান করে ধন্য ধন্য ধুয়ো তোলা । কিন্তু সমস্যা হল শহুরে কবি-সাহিত্যিক-নাট্যকার-শিল্পী-সিনেমাসিরিয়ালপরিচালক কেউই শহরের ঘেরাটোপের বাইরে বেরোন না (ব্যতিক্রমীরা নমস্য) । তাঁরা তাঁদের উচ্চমধ্যবিত্তজীবনের জীবনচর্যা,সমস্যা-সংকটকে তাঁদের শিল্প-সাহিত্য-নাটক-সিনেমা-সিরিয়ালে পাচার করেন । আমরা বাধ্য হয়ে গিলি আর নিজস্বতা হারিয়ে ফেলি ; সাধ আর সাধ্যের দ্বন্দ্বের মধ্যে পড়ি । আবহমানকাল লোকসমাজ এই বাবুকালচারের বিরুদ্ধে সাংস্কৃতিক প্রতিরোধ গড়ে তুলে লড়াই জারি রেখেছে । লোকসংস্কৃতির বিভিন্ন ধারা এভাবেই পুষ্ট হয়েছে । দক্ষিণ চব্বিশ পরগনার দক্ষিণপ্রান্তের গাজনও এমন একটি ধারা যা হ্যাংলা দর্শক বা বোকাশ্রোতা হওয়ার বিপরীতে গ্রামীণমানুষের সৃজনশীলতাকে উসকে দেয়; গ্রামীণসমাজের দোষত্রুটিকে শোধরানোর জন্য গীতিনাট্যকে হাতিয়ার করে । এক্ষেত্রে তাঁরা ব্যবহার করেন তাঁদের মুখের ভাষা , কখনও কখনও স্ল্যাংও ঢুকে পড়ে অবলীলায় । নামে ধর্মীয় কিন্তু কাজে খাঁটি লৌকিক বলেই ধনী-গরীব , জাত বা ধর্ম এখানে গুরুত্ব পায় না । সব জাতের সব ধর্মের মানুষই এই গীতিনাট্যে সানন্দে অংশ নেন । বাবুকালচারে দীক্ষিত মানুষেরা ছোটলোকদের এই গেঁয়ো সংস্কৃতিকে সমালোচনা করার অনেক উপাদানই খুঁজে পাবেন ।

 

 

গেঁয়োজনের জননাট্য

দক্ষিণ চব্বিশ পরগনার দক্ষিণে চৈত্র মাসের শেষে প্রায় সপ্তাহব্যাপী চৈতিগাজন বা ঢালগাজন নামে একধরণের গ্রামীণ গীতিনাট্যের অনুষ্ঠান চলে।নামে শিবের গাজন কিন্তু ধর্ম এখানে মুখ্য নয় । জাতধর্ম এখানে উপেক্ষিত । দেখা যাবে নারান শিব তো নজরুল পার্বতী । পাড়ায় পাড়ায় ম্যারাপ । এপাড়ার ছেলেরা যায় ওপাড়ায় গাজন করতে । আবার ওপাড়ার ছেলেরা আসে গাজনদল নিয়ে এপাড়ায়।সকাল থেকে শুরু করে মধ্যরাত পর্যন্ত চলে এমনটা । সাজগোজের বাহার তো আছেই,আছে বিবিধ বাদ্যযন্ত্র । তবে হ্যাঁ আলকাপের মত গাজনেও ছেলেরাই মেয়েদের ভুমিকায় অভিনয় করে । বিষয় হিসাবে পৌরাণিক আখ্যান তো থাকেই , তার সঙ্গে অবশ্যই থাকে সমকালীন গ্রামীন বা জাতীয় বিষয় ।নেতা-মন্ত্রীদের কেলেঙ্কারি থেকে শুরু করে পণপ্রথা , বাল্যবিবাহ , বাবুদের চরিত্রহীনতাসহ ব্যক্তি বা সমাজের বিভিন্ন দোষ-ত্রুটি জীবন্ত হয়ে ওঠে গাজনে । যদি সম্ভব হয় বন্ধুরা আসুন এই গ্রামীন গীতিনাট্যের গণ-আসরে। দেখবেন আপনাদের অগোচরে থাকা গ্রামীণ পৃথিবী কেমন বর্ণময় ও রমণীয়।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *