সাতসকালে ভয়াবহ বিস্ফোরণে বেলেঘাটায় উড়ে গেল একটি ক্লাবের ছাদ        রেলকর্মীদের ট্রেনে আমজনতার যাত্রা নিয়ে সোনারপুর স্টেশনে ধুন্ধুমার কান্ড        অবশেষে মাদক কাণ্ডে জামিন পেলেন অভিনেত্রী রিয়া চক্রবর্তী        ডায়মন্ড হারবার আসার পথে ভাঙচুর করা হল বিজেপি নেতা শমীক ভট্টাচার্যের গাড়ি        করোনায় আক্রান্ত হলেন সৌমিত্র চট্টোপাধ্যায়        মণীশ শুক্লার মরদেহ নিয়ে রাজভবনের পথে বিজেপি        গুলিবিদ্ধ হয়ে মৃত্যু হল বিজেপি নেতা মণীশ শুক্লার, উত্তপ্ত টিটাগড়        বিস্ফোরক ভর্তি গাড়ি আটক বীরভূমে, গ্রেপ্তার গাড়ির চালক        মস্তিস্কখেকো অ্যামিবা, মর্মান্তিক মৃত্যু হল এক শিশুর        আর্মেনিয়া ও আজারবাইজানের মধ্যে শুরু হল যুদ্ধ, নিহত প্রায় ১৬        সাতসকালে ভয়াবহ বিস্ফোরণে বেলেঘাটায় উড়ে গেল একটি ক্লাবের ছাদ
রেলকর্মীদের ট্রেনে আমজনতার যাত্রা নিয়ে সোনারপুর স্টেশনে ধুন্ধুমার কান্ড
অবশেষে মাদক কাণ্ডে জামিন পেলেন অভিনেত্রী রিয়া চক্রবর্তী
ডায়মন্ড হারবার আসার পথে ভাঙচুর করা হল বিজেপি নেতা শমীক ভট্টাচার্যের গাড়ি
করোনায় আক্রান্ত হলেন সৌমিত্র চট্টোপাধ্যায়
মণীশ শুক্লার মরদেহ নিয়ে রাজভবনের পথে বিজেপি
গুলিবিদ্ধ হয়ে মৃত্যু হল বিজেপি নেতা মণীশ শুক্লার, উত্তপ্ত টিটাগড়
বিস্ফোরক ভর্তি গাড়ি আটক বীরভূমে, গ্রেপ্তার গাড়ির চালক
মস্তিস্কখেকো অ্যামিবা, মর্মান্তিক মৃত্যু হল এক শিশুর
আর্মেনিয়া ও আজারবাইজানের মধ্যে শুরু হল যুদ্ধ, নিহত প্রায় ১৬

গুলিবিদ্ধ হয়ে মৃত্যু হল বিজেপি নেতা মণীশ শুক্লার, উত্তপ্ত টিটাগড়

ব্রেকিং বেঙ্গল ওয়েব ডেস্কঃ রবিবার রাত আটটা নাগাদ টিটাগড়ের বিজেপি পার্টি অফিসে গুলিবিদ্ধ হয়েছিলেন ব্যারাকপুরের ডাকসাইটে বিজেপি নেতা মণীশ শুক্ল। রাত সওয়া দশটা নাগাদ বাইপাসের ধারের বেসরকারি হাসপাতালে তাঁর মৃত্যু হয়েছে। মণীশের মৃত্যুর খবর রটতেই উত্তাল হয়ে ওঠে টিটাগড়। শুরু হয়েছে বিটি রোড অবরোধ। পরিস্থিতি.নিয়ন্ত্রণে আনতে নামানোর হয়েছে কমব্যাট ফোর্স।জানা গিয়েছে, রবিবার রাতে টিটাগড়ে বিজেপি পার্টি অফিসের সামনে কয়েক জনের সঙ্গে কথা বলছিলেন মণীশ। সেই সময়েই দুষ্কৃতীরা হামলা চালায়। খুব কাছ থেকে তাঁকে চারটি গুলি করে পালিয়ে যায় তারা।আশঙ্কাজনক অবস্থায় মণীশকে প্রথমে নিয়ে যাওয়া হয় বিএন বসু হাসপাতালে। তারপর অবস্থার অবনতি হওয়ায় ভর্তি করা হয় বাইপাসের ধারের একটি বেসরকারি হাসপাতালে। সেখানেই তাঁর মৃত্যু হয়। বিজেপির অভিযোগ, তৃণমূল আশ্রিত দুষ্কৃতীরাই মণীশকে গুলি করেছে। অভিযোগ অস্বীকার করেছে শাসকদল।টিটাগর থানার ঢিলছোড়া দূরত্বে এই শুট আউটের ঘটনায় উত্তপ্ত এলাকা। প্রতিবাদে অবরুদ্ধ বিটি রোড। পরিস্থিতি সামাল দিতে নামানো হয়েছে কমব্যাট ফোর্স।টিটাগড় থেকে ইছাপুর পর্যন্ত মণীশ শুক্লর দাপট রয়েছে বলেই মত রাজনৈতিক মহলের। বাম জমানার শেষ দিকে ব্যারাকপুর রাষ্ট্রগুরু সুরেন্দ্রনাথ কলেজের ছাত্র সংসদ ভোট ঘিরে অগ্নিগর্ভ পরিস্থিতি তৈরি হয়েছিল। চলেছিল গুলিও। সেই সময় থেকেই ব্যারাকপুরের রাজনীতিতে মণীশ পরিচিত নাম।শিল্পাঞ্চলের জনতা তাঁকে অর্জুন সিংয়ের লোক হিসেবেই জানেন। অর্জুন বিজেপি-র সাংসদ হওয়ার পর গত বছর জুন মাসে মণীশ বিজেপিতে যোগ দেন।লোকসভার পর থেকেই উত্তপ্ত ব্যারাকপুর শিল্পাঞ্চল। একাধিক মৃত্যুর ঘটনাও ঘটেছে। পরিস্থিতি এমন হয় যে ব্যারাকপুরের পুলিশ কমিশনারকে বদলি করে নবান্ন। মাঝে কয়েক মাস বিক্ষিপ্ত অশান্তি ছাড়া পরিস্থিতি স্বাভাবিক থাকলেও এদিন ফের খুনের ঘটনা ঘটল।জানা যাচ্ছে, তৃণমূলে থাকার সময়ে মণীশ শুক্ল যে গোষ্ঠীর বিরোধী ছিলেন তারাই হামলা চালিয়েছে। যদিও শাসকদলের বক্তব্য, যা ঘটেছে সবটাই বিজেপির অভ্যন্তরীণ কোন্দল। রাত এগারোটা পর্যন্ত এই ঘটনায় কাউকে গ্রেফতার করেনি পুলিশ।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *